পুলিশ বাহিনী হারাচ্ছে এডিসি ছানোয়ারকে ?

0
2546

টুডে বাংলা ২৪: মুক্তির প্রথম দিনেই বাজিমাত করলো ‘ঢাকা অ্যাটাক’। দুই দিনেই টিকিট বিক্রি হয়েছে প্রায় সাত কোটি টাকার।

শুক্রবার রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশের ১২৫টি হলে মুক্তি পেয়েছে আরেফিন শুভ, মাহিয়া মাহি, এ বি এম সুমন, নওশাবা, তাসকিন, আলমগীর, হাসান ইমাম, শতাব্দী ওয়াদুদ, আফজাল অভিনীত ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবিটি। সারা দেশ থেকে ছবিটির ব্যবসায়িক সাফল্যের কথা আসছে। ছড়াচ্ছে সোশাল মিডিয়ায়।

এই ছবিটির কাহিনীকার গোয়েন্দা পুলিশের এডিসি ছানোয়ার হোসেন। একইসাথে ছবির প্রধান সমন্বয়কারিও তিনি। ছবিটির সাথে আলোচনায় এখন ছানোয়ার হোসেনের নাম। সামাজিক মাধ্যমে বেশ আলোচনা হচ্ছে ‘ঢাকা অ্যাটাকে’র পুরো টিম নিয়ে।

অনেকেই এই ছবিটিকে বলছেন সময়ের সেরা ছবি। পুলিশ বাহিনীর চ্যালেঞ্জ, সমস্যা ও সম্ভাবনা তুলে ধরা হয়েছে এই সিনেমায়। সাথে আছে রোমান্টিক গল্পও। একসাথে সবকিছু এক সিনেমায় দেখতে পেয়ে তৃপ্ত দশর্করা।

এই সফলতার জন্য ছবিটির পেছনের মূল কারিগর পুলিশ কর্মকর্তা ছানোয়ার হোসেনকে ‘রিয়েল হিরো’ উল্লেখ করে সামাজিক মাধ্যমে স্ট্যাটাস দিয়েছেন অনেকেই।

অনেকেই বলছেন, ‘বেশ কিছুদিন পর ভালো ছবি দেখলাম।’

সপরিবারে সিনেমাটি দেখে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক তাঁর ফেসবুক ওয়ালে লিখেছেন,” ‘ঢাকা অ্যাটাক’ অসাধারণ একটি চলচিত্র! প্রতিটি মুহুর্ত ছিল আকর্শণীয়! গল্প, চরিত্র নির্বাচন, অভিনয়, সাউন্ড, প্রযুক্তির ব্যবহার, এনিমেশন, সবই ছিল নিখুঁত!”

একজন তার ফেসবুক ওয়ালে লিখেছেন “প্রথম ছবিতেই বাজিমাত করার পর ছানোয়ার হোসেনকে চলচিত্রের মানুষ হিসেবেই দেখতে চাই।”

আরেকজন লিখেছেন, “সানি ভাই (ছানোয়ার হোসেন) আপনার পরিকল্পনায় এমন আরো ছবি দেখতে চাই। আপনি পুলিশের চাকরি ছেড়ে পুরোদমে চলচিত্রে চলে আসেন।”

সত্যিই কি ছানোয়ার হোসেন চলচিত্রের মানুষ হয়ে যাচ্ছেন? দর্শকদের এমন আবদারের বিষয়ে প্রশ্ন ছিলো ছানোয়ার হোসেনের কাছে।

তিনি জানান, “পুলিশ বাহিনী আমার আদর্শ। এই বাহিনীর প্রতি দায়বদ্ধতার কারনেই ঢাকা অ্যাটাকের যাত্রা শুরু। পুলিশের চ্যালেঞ্জগুলো মানুষের সামনে তুলে ধরেছি। পুরো পুলিশ বাহিনীর অবদান রয়েছে ‘ঢাকা অ্যাটাক’এ। দেশের মানুষ বেশ সারা দিয়েছে। যে কোন ভালো কাজের সাথেই পুলিশ বাহিনী থাকবে, আমিতো থাকবোই।”

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here