মালয়েশিয়ায় অপহৃত বাংলাদেশীকে উদ্ধার দুই অপহরণকারি পুলিশের গুলিতে নিহত

0
243

আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া:মালয়েশিয়ায় পুলিশের গুলিতে দুই বাংলাদেশি নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

মালয়েশিয়ার জাতীয় দৈনিক ষ্টার অনলাইনের খবর সূত্রে জানা গেছে, দেশটির তামান মুডুন,বাতু ৯ চেরাস এলাকার একটি বাড়ি থেকে অপহৃত এক বাংলাদেশীকে উদ্ধারের সময় পুলিশের অভিযানে গুলিবিদ্ধ হয়ে দুই জন অপহরণকারী বাংলাদেশী মারা যায় বলে দাবি করেছে পুলিশ। পুলিশের গুলিতে নিহত দুই বাংলাদেশির বিরুদ্ধে ১৩ টি অভিযোগ ছিল বলে জানায় পুলিশ প্রশাসন।

কাজাং ওসিপিডি’র সহকারী কমিশনার আহমেদ জাফির ইউসুফ বলেন, ‘কুয়ালালামপুরের পুলিশ একটি সংঘবদ্ধ চক্রকে ধরার জন্যে ওৎ পেতে ছিলেন। মঙ্গলবার রাতে চেরাসের বাতু ৯ এবং তামান মুদুনের একটি ছোট স্থানে অবস্থান করছিলেন তারা । রাত ১ টা ৩৫ মিনিটে পুলিশ বাড়িটিতে অভিযান চালায়। সেখানে এক ব্যক্তিকে অপহরণ করে রাখা হয়েছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছিল।

অভিযান চলাকালীন সময়ে বাড়িটি থেকে অপহরণকারীরা গুলি ছুড়তে শুরু করে। আত্মরক্ষার জন্যে পাল্টা গুলি ছোড়ে পুলিশও।

জাফির ইউসুফ বলেন, আমরা সফলভাবে অপহরণে আটক ব্যক্তিকে মুক্ত করি। গত ৮ ফেব্রুয়ারি সেন্তুল থেকে তাকে অপহরণ করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে একটি ৯এমএম পিস্তল এবং একটি চাপাতি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে নিহত ব্যক্তিদের কাছ থেকে কোন ধরনের ডকুমেন্টও পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় একটি মামলাও করা হয়েছে। ৩০৭ ধারায় পেনাল কোর্টে এই মামলাটির তদন্ত চলছে বলেও জানান তিনি।

নিহত ২ বাংলাদেশির বিরুদ্ধে মালয়েশিয়ায় বিভিন্ন দেশের শ্রমিকদের অপহরণ করে চাঁদাবাজির অভিযোগ ছিল। মুক্তিপণের দাবিতে এই পর্যন্ত তারা মালয় রিংগিত ২.৫ মিলিয়ন অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে বলে পুলিশ জানায়। পুলিশের অভিযানের সময় ওই বাড়ি থেকে অপহৃত এক বাংলাদেশীকে উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত বাংলাদেশির বয়স আনুমানিক ৩০ থেকে ৩৫ বছর। তবে পুলিশ নিহত এবং উদ্ধারকৃত বাংলাদেশির নাম এখনো প্রকাশ করেনি। পুলিশ বলছে নিহত ২ বাংলাদেশির কাছে কোন বৈধ কাগজপত্র ছিল না।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here